জামায়াত নেতাকে আ'লীগের সভাপতি করায় তৃণমূলে ক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিবেদক | প্রকাশিত: ২৪ এপ্রিল ২০২১ ১৮:৫৪; আপডেট: ২৮ জুলাই ২০২১ ১২:২৬

জামালপুরে আওয়ামী লীগের ওয়ার্ড কমিটিতে জামায়াতের সাবেক নেতাকে সভাপতি করায় দলের তৃণমূলের নেতা-কর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ ও হতাশা বিরাজ করছে।

দলীয় পদ ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে পদ বঞ্চিত নেতার বাড়িতে ইটপাটকেল নিক্ষেপ ও পটকাবাজির ঘটনা ঘটেছে। পদবঞ্চিত এক নেতাকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) রাত সাড়ে ১০টায় জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে পৌর আওয়ামী লীগ জামালপুর পৌরসভার ১২টি প্রশাসনিক ওয়ার্ডের মধ্যে ১১টি ও সাংগঠনিক ৫টি ওয়ার্ড কমিটি ঘোষণা করা হয়।

১১ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতির পদ পান ওয়ার্ড কাউন্সিলর এমদাদুল ইসলাম জীবন। নব্য এই সভাপতির নামে জেএমবি ও জামায়াত করার অভিযোগ উঠেছে। দুই কোটি টাকায় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতির পদ তিনি বাগিয়ে নিয়েছে বলে গুঞ্জন চলছে জামালপুর শহরজুড়ে।


স্থানীয়রা জানান, পদ পাওয়ার পরপরই রাতেই এমদাদুল ইসলাম জীবনের কর্মী সমর্থকরা সভাপতি পদ প্রত্যাশী সাবেক কাউন্সিলর রাকিব হাসান রাজুর শহরের শেখের ভিটার বাড়িতে হামলা চালিয়ে দফায় দফায় ইটপাটকেল পটকা নিক্ষেপ করে হট্টগোল করে। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে জীবনের সমর্থক সাব্বির, হাসিব, রিফাতসহ ৫ জনকে আটক করে সদর থানা পুলিশ। রাতেই আটককৃতদের থানা থেকে ছেড়ে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ করেছে রকিব হাসান রাজু।

তিনি বলেন, “সকালে আমি বাড়ি থেকে বের হয়ে বগাবাইদ বোর্ডঘর যাওয়ার পথে জীবনের বাড়ির সামনে জীবনের ভাই জনি, জাকির ও সিফাত অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে হামলা চালায়।”

এ সময় খবর পেয়ে রাজুর কর্মী সমর্থক ও স্বজনরা জীবনের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ইটপাটকেল নিক্ষেপ ও জীবনের গাড়ি ভাঙচুর করে এবং জীবনকে লাঞ্ছিত করেছে।

তিনি অভিযোগ করে আরেও বলেন, “জামায়াত নেতা আওয়ামী লীগের সভাপতি হওয়ায় দলের মাঠপর্যায়ের ত্যাগী নেতা-কর্মী ও শহরবাসীর মুখে মুখে গুঞ্জন চলছে দুই কোটি টাকার বিনিয়মে আওয়ামী লীগের ওয়ার্ড সভাপতি পদ বাগিয়ে নিয়েছেন জামায়াত নেতা। এ মুখরোচক গুঞ্জন টক অব দ্য টাউনে পরিণত হয়েছে।”

পৌর কাউন্সিলর ও ১১ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সদ্য সভাপতি এমদাদুল ইসলাম জীবন সাংবাদিকদের বলেন, “আমি জেএমবি জামায়াত বিএনপি করি নাই এবং টাকা দিয়ে পদ কেনার অভিযোগ সঠিক নয়। আওয়ামী লীগের ইতিহাসে টাকা দিয়ে পদ বিক্রির নজির নেই।”

জামালপুর পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বিজন কুমার চন্দ জানান, মঙ্গলবার রাতে কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। দলের ত্যাগী ও পরীক্ষিত নেতাদের পদ দেওয়া হয়েছে। অর্থের বিনিময়ে কমিটিতে পদ দেওয়া হয়েছে, এটি অপপ্রচার মাত্র।




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top