নীরবে অবসরে গেলেন স্যামুয়েলস

নীরবে অবসরে গেলেন স্যামুয়েলস

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশিত: ৫ নভেম্বর ২০২০ ০১:১০; আপডেট: ২৫ অক্টোবর ২০২১ ০৪:০৭

পেশাদার ক্রিকেটকে বিদায় বলে দিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিশ্বকাপজয়ী ক্রিকেটার মারলন স্যামুয়েলস। ক্যারিবীয়দের হয়ে শেষ ২০১৮ সালে বাংলাদেশের বিপক্ষে খেলেছেন তিনি। ওই ম্যাচটিই তাঁর ক্রিকেট ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচ হয়ে থাকল।

২০১৮ সালের পর ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিকেটে আর দেখা যায়নি স্যামুয়েলসকে। এত দিন পর জানা গেল, ক্রিকেটকে বিদায় বলে দিয়েছেন তিনি। ক্রিকেট ওয়েবসাইট ইএসপিএনক্রিকইনফোকে খবরটি নিশ্চিত করেছেন ক্রিকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রধান নির্বাহী জনি গ্রেভ। তিনি জানান, গত জুনেই ক্রিকেট বোর্ডকে বিদায়ের কথা জানিয়ে দিয়েছেন স্যামুয়েলস।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিকেটে অনেক অবদান রেখেছেন স্যামুয়েলস। বিশেষ করে ক্যারিবীয়দের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ে। দুটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ম্যান অব দ্য ম্যাচ হন তিনি। দুই বৈশ্বিক টুর্নামেন্টে এমন কীর্তি কোনো ক্রিকেটারের নেই।

প্রথমবার ম্যান অব দ্য ম্যাচ হন ২০১২ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে। ওই বিশ্বকাপে লঙ্কান বোলারদের পিটিয়ে ৫৬ বলে ৭৮ রানের ইনিংস খেলেন তিনি। সেই সঙ্গে বল হাতে চার ওভারে মাত্র ১৫ রান দিয়ে নেন একটি উইকেট।

চার বছর পর উইন্ডিজদের আরেকটি বিশ্বকাপে অবদান রাখেন স্যামুয়েলস। ২০১৬ সালের আসরে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে খেলেন ৬৬ বলে ৮৫ রানের ইনিংস। সেদিন শেষ ওভারে কার্লোস ব্র্যাথওয়েটের চার ছক্কা ক্রিকেট ভক্তদের নজর কেড়েছে ঠিকই কিন্তু জয়ের মূল ভিতটা গড়ে দিয়েছিলেন স্যামুয়েলসই।

সব মিলিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে ৭১টি টেস্ট খেলে তিন হাজার ৯১৭ রান করেছেন স্যামুয়েলস। যার মধ্যে সাতটি সেঞ্চুরির সঙ্গে আছে ২৪টি হাফসেঞ্চুরি। বল হাতে এই ফরম্যাটে নিয়েছেন ৪১টি উইকেট।

ওয়ানডেতে ২০৭ ম্যাচ খেলে পাঁচ হাজার ৬০৬ রান করেছেন এই জ্যামাইকান তারকা। যার মধ্যে আছে ১০টি সেঞ্চুরি ও ৩০টি হাফসেঞ্চুরি। ওয়ানডেতে উইকেট নিয়েছেন ৮৯টি। আর টি-টোয়েন্টিতে ব্যাট হাতে করেছেন এক হাজার ৬১১ রান আর বল হাতে নিয়েছেন ২২টি উইকেট। দেশের ক্রিকেটে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখা স্যামুয়েলস অনেকটা নীরবেই ক্রিকেট ক্যারিয়ারের ইতি টানলেন।



বিষয়: স্পোর্টস


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top